1. rsumon83@gmail.com : Gobi Khobor : Mostofa Kamal
  2. omar1@gobikhobor.com : omar Faruk : omar Faruk
  3. ariful.bpi2012@gmail.com : Ariful Islam : Ariful Islam
  4. omar@gobikhobor.com : omar Faruk : omar Faruk
  5. rsaidul34@gmail.com : Saidul Islam : Saidul Islam
গুজব! গোবিন্দগঞ্জের একদিনের গুজব পড়ুন - গোবি খবর
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
করোনা উপসর্গ নিয়ে গোবিন্দগঞ্জের বাসিন্দা বিদ্যুৎ প্রকৌশলী শিবলু’র মৃত্যু গোবিন্দগঞ্জে বিরোধের জেরে হামলায় ৩ জন গুরুত্বর আহত গাইবান্ধায় ২৪তম বিসিএস ফোরামের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ গোবিন্দগঞ্জের আলোচিত নাকাইহাটে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় হুকুমদাতা সাজু মেম্বর গ্রেফতার গোবিন্দগঞ্জে মসজিদে মসজিদে একাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন স্বপ্নীল ফাউন্ডেশনের পরিচালক মু.আলমগীর হোসাইন কক্সবাজার জেলা ইসলামী যুব কক্সবাজার জেলাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছে সুন্দরগঞ্জে শ্রমিকদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটনের পক্ষে গোবিন্দগঞ্জে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

গুজব! গোবিন্দগঞ্জের একদিনের গুজব পড়ুন

  • আপডেট করা হয়েছে : সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৩ বার পঠিত

মোস্তফা কামাল সুমন: গুজব যে কত শক্তিশালী ও ভয়াবহ তা তুলে ধরার জন্য এই লেখার সূচনা। সকালে যে গুজবে অসুস্থ থাকে সন্ধ্যায় সেই গুজব তাকে মৃত ঘোষণাও করে৷ ৬ এপ্রিল ২০২০ খ্রিস্টাব্দ রোজ সোমবারের গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় প্রচার পাওয়া কিছু গুজব গোবিখবরের পাঠকদের জন্য তুলে ধরলাম।

সোমবার বেলা দশটা সাড়ে দশটা নাগাদ প্রচার পায় গোবিন্দগঞ্জে সর্বজন পরিচিত ডাক্তার সুলতান আহম্মেদ করোনায় আক্রান্ত হয়ে পরিবার সমেত আইসোলেশনে আছেন। যদিও আমি দুপুর বারোটায় নিশ্চিত তাঁর প্রতিষ্ঠানের ল্যাব টেকনোলজিস্টের মাধ্যমে তিনি পুরোপুরি সুস্থ আছেন। দিনের বেলা বাড়তে থাকে আর সুলতান ডাক্তারকে নিয়ে গুজব তার পেখোম মেলতে শুরু করে। সোমবার সন্ধ্যায় এই গুজব চূড়ান্ত রুপ পায় যে, ডাক্তার সুলতান মারা গেছে করোনায়। যদিও তিনি আল্লাহ তায়ালার রহমতে সম্পূর্ন সুস্থ ছিলেন। সুলতান ডাক্তারের এই গুজবের সাথে আরও কয়েকজন ডাক্তারের নাম যুক্ত হয় করোনায় আক্রান্ত হিসেবে। তাদের মধ্যে অন্যতম ডা. আব্দুল জলিল, ডা. শাহারুল আলম মন্ডল, ডা. সাজেদুর রহমান সুজন। এমন কি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মজিদুল ইসলামের নামও যুক্ত হয় করোনা আক্রান্ত গুজবে।

সোমবার দশটা এগারোটার দিকে গুজব রটে মহিমাগঞ্জে এক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে জ্বরে আক্রান্ত। এই তথ্যে মেডিকেল টীম গিয়ে উপস্থিত হয় তার বাড়িতে। গিয়ে দেখে সাধারণ স্বর্দি জ্বর। এর একটু পড়েই একই রকম তথ্য প্রচার পায় উপজেলার বোগদহ ভেলামারি গ্রামে একজন করোনায় আক্রান্ত। সেই জায়গাও দিয়ে মেডিকেল টীম সাধারণ জ্বর পাওয়া। এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মজিদুল ইসলাম জানান, তারা আসলে বিড়ম্বনায় পড়ে গেছেন। তিনি উপজেলা বাসীকে গুজবে কান দিতে অনুরোধ করে জানান, উপজেলায় যদি কার স্বর্দি জ্বর গলাব্যথা হয় তার সুনির্দিষ্ট নাম ঠিকানা সহ করোনা প্রতিরোধ কমিটিকে জানাতে। তিনি আরো জানান, অনেকেই অন্য কে বিপদে ফেলতে মিথ্যা তথ্য দিচ্ছেন।

সোমবার বিকালে উপজেলায় জোর প্রচার পায় সরকার প্রধান গাইবান্ধা জেলায় পূর্ণাঙ্গ লকডাউন ঘোষণা করে। ব্যক্তিগত প্রচার থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়া ভরে যায় এই তথ্য। যদিও সোমবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামকৃষ্ণ বর্মন এই তথ্য নিশ্চিত করতে পারেন নি। পরে লোক মারফতে জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকেও এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যা শুধু গুজব হিসেবেই ঘুরতে থাকে।

করোনার মত বৈশ্বিক মহামারীতে যেকোন ছোট গুজব বিপদজনক হতে পারে। কোন তথ্য প্রচার করার আগে যথাযথ মাধ্যমে নিশ্চিত হয়েই প্রচার করুন। গুজবে কান না দিয়ে সর্তক ও সচেতন থাকুন।

(প্রচ্ছদ ছবি দিপু চৌধুরীর ফেসবুক আইডি থেকে নেওয়া)

Comments

comments

এই খবর সবার সাথে শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর

গোবিন্দগঞ্জ ও তৎসংলগ্ন এলাকার জন্য

সারাদেশের জন্য

© স্বত্ব গোবিখবর ২০১৩-২০২০

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft