1. rsumon83@gmail.com : Gobi Khobor : Mostofa Kamal
  2. omar1@gobikhobor.com : omar Faruk : omar Faruk
  3. ariful.bpi2012@gmail.com : Ariful Islam : Ariful Islam
  4. omar@gobikhobor.com : omar Faruk : omar Faruk
  5. rsaidul34@gmail.com : Saidul Islam : Saidul Islam
করোনা মোকাবেলায় মসজিদ মন্দির সমাজভিত্তিক ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হোক - গোবি খবর
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
করোনা উপসর্গ নিয়ে গোবিন্দগঞ্জের বাসিন্দা বিদ্যুৎ প্রকৌশলী শিবলু’র মৃত্যু গোবিন্দগঞ্জে বিরোধের জেরে হামলায় ৩ জন গুরুত্বর আহত গাইবান্ধায় ২৪তম বিসিএস ফোরামের উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ গোবিন্দগঞ্জের আলোচিত নাকাইহাটে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় হুকুমদাতা সাজু মেম্বর গ্রেফতার গোবিন্দগঞ্জে মসজিদে মসজিদে একাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন স্বপ্নীল ফাউন্ডেশনের পরিচালক মু.আলমগীর হোসাইন কক্সবাজার জেলা ইসলামী যুব কক্সবাজার জেলাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছে সুন্দরগঞ্জে শ্রমিকদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটনের পক্ষে গোবিন্দগঞ্জে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

করোনা মোকাবেলায় মসজিদ মন্দির সমাজভিত্তিক ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হোক

  • আপডেট করা হয়েছে : শনিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬২ বার পঠিত

মোস্তফা কামাল সুমন: সারা বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। ইতিমধ্যেই বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৫০ হাজার অতিক্রম করেছে। বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে এই ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে। দেশে দেশে চলছে লকডাউন। আমাদের দেশে লকডাউন ঘোষণা না করা হলেও সরকার দীর্ঘ মেয়াদী সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। করোনা মোকাবেলায় সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। প্রতি নিয়ত সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া হচ্ছে নানা উদ্যোগ। বিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের সাথে দেশের সাধারণ মানুষকেও এগিয়ে আসতে হবে। এই দীর্ঘ সামাজিক দূরত্বকালীণ সময়ে সমাজের কম ভাগ্যবান মানুষ পড়েছে সবচেয়ে বেশি সমস্যায়। তারা যেমন ঘর থেকে বের হতে পারছে না তেমনি আবার তাদের ঘরেও খাবার সংকট দেখা দিয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে তাদের জন্য যে সহযোগিতার দেওয়া হচ্ছে যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। আর এই ত্রাণ যাদের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে সেই জনপ্রতিনিধিদের নিয়েও অসন্তোষ বিরাজমান। এমন অবস্থায় করোনায় কমভাগ্যবানদের সহযোগিতার অন্যতম প্রধান মাধ্যম হতে পারে গ্রামে গ্রামে ধর্মীয় সমাজ ভিত্তিক ফুড ব্যাংক। মসজিদ মন্দির কেন্দ্রিক সমাজ ভিত্তি ধরে সারাদেশে ফুড ব্যাংক স্থাপন করার উদ্যোগ নেওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

প্রতিটি মানুষ কোন না কোন ধর্মীয় সমাজের অংশ। গ্রাম প্রধান এই বাংলাদেশে মসজিদ মন্দির ও অন্যান্য উপাসনালয় কেন্দ্রিক সমাজ ব্যবস্থা বিদ্যমান। প্রত্যেক মানুষই তার নিজ নিজ ধর্মীয় সমাজভুক্ত। একটি গ্রামে একাধিক ধর্মীয় সমাজ বিদ্যমান। কোথাও কোথাও আরো বেশি। আর এই ধর্মীয় উপাসনাল কেন্দ্রিক সমাজে সবাই সবার আর্থিক অবস্থা সর্ম্পকে জানা শোনা আছে। করোনার মত দূর্যোগকালীন সময়ে আমাদের এই ধর্মীয় সমাজের সহযোগিতা নেওয়া জরুরি। প্রতিটি ধর্মীয় সমাজ কেন্দ্রিক একটি করে ফুড ব্যাংক গঠন করা যেতে পারে। ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রয়োজনীয় উপকরণ থাকবে। সমাজের সামর্থবানরা তাদের সামর্থ মত দান করবে। যার যা প্রয়োজন সে সেখান থেকে নিয়ে যারে। আর যাদের বেশি আছে তারা সেখানে দান করবে। সরকারও মসজিদ মন্দির ভিত্তিক সমাজে প্রয়োজনীয় যোগান দিবে।

এতে করে একদিনে যেমন অপচয় রোধ হবে অন্যদিকে সমাজের অসহায় নি¤œবিত্ত, মধ্যবিত্ত এমনকি সমাজের উচু শ্রেণি ভুক্তরাও তাদের প্রয়োজনীয় উপকরণ নিতে পারবে। বর্তমানে বিচ্ছিন্ন পদ্ধতিতে যেভাবে খাদ্য সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে তাতে বিশাল ফাঁক থেকে যাচ্ছে। এই পদ্ধতিতে একজনই হয়তো বহুবার পাচ্ছে আবার কেউ একবারও পাচ্ছে না। অপরদিকে, সরকারের ত্রাণ সহায়তা যে জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে তাদের প্রতি জনগণের বিরাট একটি অংশের অনাস্থা সৃষ্টি হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া এই নিয়ে বেশ সবর। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই স্বশস্ত্র বাহিনীর মাধ্যমে ত্রাণ দেওয়ার দাবী করছে।

দেশে করোনা পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণ হতে কত সময় লাগবে তা সঠিক করে এখনি বলা সম্ভব নয়। করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্টি হওয়া পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের আন্তরিকতার কোন কমতি নেই। সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান, সামর্থবান ও বিবেকবান মানুষ এগিয়ে এসেছে দেশের মানুষের জন্য। এজন্য বিচ্ছিন্ন ভাবে ত্রাণ সহায়তা বিতরণ না করে চাই সম্মিলিত কার্যক্রম। আর এই সম্মিলিত কার্যক্রমের প্রধান মাধ্যম হতে পারে গ্রামে গ্রামে পাড়া মহল্লায় মসজিদ মন্দির সমাজ ভিত্তিক ফুড ব্যাংক স্থাপন করে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা। একবার এই পদ্ধতিতে সুফল পাওয়া গেলে পরবর্তিতে অন্যান্য কার্যক্রমেও সরকার এর সহায়তা নিতে পারবে।

তাই দেশের এই দূর্যোগকালীণ সময়ে পাড়ায় পাড়ায় মসজিদ মন্দির সমাজ ভিত্তিক ফুড ব্যাংক স্থাপন করে দেশের মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসার আহবান জানাচ্ছি।

Comments

comments

এই খবর সবার সাথে শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর

গোবিন্দগঞ্জ ও তৎসংলগ্ন এলাকার জন্য

সারাদেশের জন্য

© স্বত্ব গোবিখবর ২০১৩-২০২০

কারিগরি সহযোগিতায় Pigeon Soft