সর্বশেষ সংবাদ

গোবিন্দগঞ্জে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত দল

মনজুর হাবীব মনজু, মহিমাগঞ্জ (গাইবান্ধা) থেকে:
মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে সারা দেশের সাথে গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধ এবং এসব অপরাধের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া কয়েকটি মামলার তদন্ত কাজ শেষ করেছেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত দল। সোমবার তদন্ত শেষে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জে তদন্ত দলের প্রধান আব্দুল হান্নান পিপিএম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে জানান, মহিমাগঞ্জসহ জেলার বিভিন্নস্থানে মানবতা বিরোধী অপরাধের প্রমাণ পাওয়া গেছে। আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে প্রচলিত আইনের আওতায় এ সব অপরাধের বিচার কাজ সম্পন্ন করা হবে।

বিকেলে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ আব্দুল কাদের সরকারের বাসভবন চত্বরে ব্রিফিংকালে তিনি আরও জানান, ইতোমধ্যে যুদ্ধাপরাধ সংক্রান্ত বিচার বিঘ্নিত করতে অনেকেই প্রভাব খাটিয়ে মামলার বাদী এবং সাক্ষীদের সাক্ষ্যদান থেকে বিরত থাকার অপপ্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে কোন প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও ট্রাইব্যুল ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তিনি আরও বলেন, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাবাড়ীতে হত্যা, লুটপাট, অগ্নি সংযোগ এবং মহিমাগঞ্জের বালুয়া এবং শ্রীপতিপুর গ্রামে হত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত তথ্য প্রমাণ ট্রাইব্যুনালে উপস্থাপন করা হবে এবং ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে মানবতা বিরোধী অপরাধের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে বিচার কাজ সম্পন্ন করা হবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্তকারী কর্মকর্তা আমিনুর রশিদ, ডেপুটি এটর্নী জেনারেল ঋষিকেশ সাহা সহ প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ।

Comments

comments

Leave a Reply