সর্বশেষ সংবাদ

কালীগঞ্জে পিবিআই পুলিশের উপর হামলা: আটক ৩ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ

জাহিদুল ইসলাম ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার আড়পাড়া এলাকার মাদ্রাসা ছাত্র আলামিন হোসেনকে নৃশংস ভাবে হত্যার ঘটনায় তদন্তে গিয়ে হামলার স্বীকার পিবিআই সদস্যদের করা মামলায় আটক আসামি তিনজনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন ঝিনাইদহ আদালত। এদিকে মামলার আলামত উদ্ধারে গিয়ে হামলার স্বীকার পিবিআই সদস্যদের করা মামলার তদন্তভার সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়েছে। হত্যা মামলায় আটককৃতরা হল, কালীগঞ্জ উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের মুশফিকুর রহমান ডাবলুর ছেলে সাব্বির হোসেন, আবদুস সামাদ মিল্টনের ছেলে তারিক হাসান হৃদয় ও অপু নামে এক যুবক। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে আসামিদের উপস্থিতিতে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ আমলী আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গৌতম কুমার বিশ্বাস দীর্ঘ রিমান্ড শুনানি শেষে এ নির্দেশ প্রদান করেন। সেই সাথে হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে হত্যায় ব্যবহৃত আলামত উদ্ধারের সু-স্পষ্ট নির্দেশ প্রদান করেছেন। গত ৩০ ডিসেম্বর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার আড়পাড়া এলাকায় ওয়াজ শুনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় মাদ্রাসা ছাত্র আলামিন। নিখোঁজের ৫দিন পর গত ৪ জানুয়ারি আড়পাড়া এলাকার একটি ৪তলা ভবনের পিছন থেকে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় গত ৫ জানুয়ারি রাতে নিহত আলামিনের বাবা আবদুর রাজ্জাক বাদি হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে মামলাটি ঝিনাইদহ পিবিআই তদন্ত করছে। গত ২ জানুয়ারি আটক দুই আসামি সাব্বির ও হৃদয় কে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। পিবিআই রিমান্ডে এনে আসামিদের উপস্থিতিতে বুধবার (৮জানুয়ারি,২০২০) সকাল থেকে আড়পাড়া এলাকার একটি পুকুর থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধারে নামে। পুলিশের ভাষ্যমতে, ওইদিন রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পিবিআই সদস্যদের উপর হামলা করে আটক সাব্বিরের পরিবার। এতে ৫ পিবিআই সদস্য আহত হয়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই পিবিআই এর এসআই সোহেল রানা বাদী হয়ে ১৮ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই দিন রাতেই হত্যা মামলায় আটক সাব্বিরের বাবা মুশফিকুর রহমান ডাবলু, চাচা মোস্তাক আহমেদ লাভলু ও আবদুস সামাদ মিল্টনকে আটক করে। মামলায় ১নং আসামি করা হয়েছে কালীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বিজু, মোস্তাক আহমেদ লাভলু, মুশফিকুর রহমান ডাবলু, রহিমা পারভীন, মোছাঃ পারভীনা আক্তার, মোঃ লাল্টু বিশ্বাস, আবদুস সালাম মিল্টন, মোছাঃ রিনি বেগম, বাবুল হোসেন, জহুরুল ইসলাম, নাসিরুল বিশ্বাস, আলম বিশ্বাস, মোঃ শওকত আলী, মোঃ মোস্তফা বিশ্বাস, ইব্রাহীম খলীল লিটন, ইকবাল হোসেন খোকন, সালাম বিশ্বাস ও অপু বিশ্বাস। এ ছাড়া আড়পাড়া এলাকায় অনেক যুবক পুলিশের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে,এছাড়া গ্রামটিতে রয়েছে আতংকগ্রস্থ। অনেকে ভয় পাচ্ছে পুলিশ কখন কাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। বিশেষ করে রাতে যানবাহনের শব্দ শুনলে বাসা বাড়িরে লোকজন ভয় পয়ে থাকে। মনে করে গ্রামে পুলিশ এসেছে। সর্বশেষ পিবিআই সদস্যদের উপর হামলার ঘটনার মামলাটি সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় আটককৃতদেরে মাদ্রাসা ছাত্র আলামিন হত্যায় শোন এ্যারেস্ট দেখিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআইয়ের এসআই সোহেল রানা

Comments

comments