সর্বশেষ সংবাদ

গোবিন্দগঞ্জে কর্মের জন্য যুবক যুবতীদের প্রতীক্ষা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে

ছবিটি বুধবার বেলা পৌনে চারটার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার একটি অফিসে আদমশুমারীর শুমারীকারী হিসেবে ভাইভা দিতে আসার অপেক্ষামানদের।

মোস্তফা কামাল সুমন: গোবিন্দগঞ্জ গাইবান্ধা জেলার অন্যতম বৃহৎ উপজেলা। জেলার অন্যান্য অংশ থেকে যোগাযোগ সুবিধার জন্য অগ্রগণ্য হলেও উপজেলায় চলছে কর্মসংস্থান শুন্যতা। দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়া কর্মসংস্থানের শুন্যতার জন্য বেকার যুবক যুবতীদের প্রতীক্ষা যেন দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে। সহসা এর প্রতিকার পাওয়া যাবে এমনটা কল্পনাও করা প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়ে।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ২০১১ সালের আদম শুমারী অনুসারে  প্রায় ৫ লাখ ১১ হাজার লোক বাস করে। বর্তমানে আরো একটি আদম শুমারীর জন্য শুনামীকারী ও সুপার ভাইজার নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। প্রচলিত আছে বর্তমানে গোবিন্দগঞ্জের জনসংখ্যা প্রায় সাড়ে ছয় লাখ। এই বিপুল জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি আবার ৪০ বছরের নিচের। কর্মক্ষম লোকের সংখ্যাও কম নয় উপজেলায়। শিক্ষিত অর্ধশিক্ষিত ও অশিক্ষিত মিলে বিপুল পরিমান যুব শক্তি আজ বেকার অবস্থা আছে উপজেলায়। তাদের যোগ্য ও দক্ষ করে গড়ে তোলার তেমন কার্যক্রম দৃশ্যমানও নয়।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা এমন একটি কর্মহীন উপজেলা যেখানে ১০ জন শিক্ষিত যুবককে একত্রে কাজে লাগানো যাবে এমন কোন প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেনি। সেই প্রতিষ্ঠান সরকারি উদ্যোগে হোক বা বেসরকারি উদ্যোগে গড়ে উঠা হোক। স্বাধীনতার অর্ধ শতাব্দী কাল অতিক্রান্ত হতে চললেও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সুধীসমাজ গোবিন্দগঞ্জে কর্মসংস্থান মূলক অর্থ ব্যবস্থা বিকাশে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেনি।সুবর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা কাজে লাগিয়ে এখানে গড়ে উঠেনি অথনৈতিক অঞ্চল বা ইপিজেড বা বিসিক শিল্পী নগরীর মত কর্মসংস্থানের উপযোগী পরিবেশ। গোবিন্দগঞ্জে গড়ে উঠেনি শিল্পকারখানা, বড় মাপের এনজিও বা এজাতীয় কোন প্রতিষ্ঠান।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার এই কর্মহীন পরিবেশ উপজেলার কর্মক্ষম যুব শক্তিকে দেশের অন্যত্র নিম্নমানের কাজ করতে বাধ্য করছে। তারা স্থানীয় ভাবে ভালো কাজ না পেয়ে দুরবতী এলাকায় গিয়ে কম মজুরীতে কাজ করতে বাধ্য হচ্ছে। দেশের গামেন্টর্স সেক্টরে কম মজুরীর শ্রমিকের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা প্রায় লক্ষাধিক শ্রমিকের যোগান দাতা। যারা অধিকাংশই সেলাইকারী, হেলপার, লোডার এই জাতীয় কাজে যুক্ত।

এখন সময় এসেছে স্থানীয় ভাবে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় কর্মস্ংস্থানের ব্যবস্থা করা। দেশ দ্রুত এগিয়ে গেলেও যোগ্য কর্মসংস্থানের অভাবে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা অগ্রসর হতে পারছে না। সময়ের তালে গোবিন্দগঞ্জকে এগিয়ে নিতে হলে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়িক সম্প্রদায় ও সুধী সমাজকে দ্রুত এগিয়ে আসতে হবে।

Comments

comments