সর্বশেষ সংবাদ

মধুপুরে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা

হাফিজুর রহমান, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:
টাঙ্গাইলের মধুপুরে শত বছরের গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যকে ধারণ করতে উপজেলার দূর্গাপুর বঙ্গবন্ধু ক্লাবের উদ্যোগে দূর্গাপুর মাঠে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। আশে পাশে উপজেলাসহ বিভিন্ন জেলার হতে আগত ঘোড়া এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। শনিবার বিকেলে মাঠে চতুরদিকে বসে হাজার হাজার দর্শক এ প্রতিযোগিতা উপভোগ করেন।
দূর্গাপুর এলাকার হাবিবুর রহমান বলেন, ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা খুবই কম হয়। গ্রাম বাংলার এই ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে আমাদের এলাকায় কয়েক বছর যাবত এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যতেও এ ধরনের আয়োজন করার দাবি জানাচ্ছি।
অপর দর্শক মাহমুদা আক্তার মালা বলেন, ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা একটি প্রাচীন ঐতিহ্য। আমি আশার করবো এ ঐতিহ্য যেন ধরে রাখা হয়। ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা মানুষ পছন্দ করে বলেই আজও হাজার হাজার মানুষ খেলাটি উপভোগ করেন।

ঘোড়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া ১২ বছর বয়সের বহুয়া এলাকার মো. নাকিব বলেন, আমি দুই তিন বছর যাবত ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নেই। প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আমার খুব ভাল লাগে। এ পর্যন্ত আমার আমি অনেক পুরস্কার পেয়েছি।
সখীপুর উপজেলার অপর প্রতিযোগি সাইফুল ইসলাম বলেন, ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আয়োজকদের পাশাপাশি আমাদেরও অনেক টাকা খরচ হয়। দূর দূরান্তে ঘোড়া গাড়ি ভাড়া করে নিতে হয়। এছাড়াও ঘোড়া লালন পালনের খরচতো আছেই। তার পরও আমার দাবি এ ধরনের গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা যাতে বার বার আয়োজন করা হয়। তাহলে আমাদের ঘোড়া লালন পালন ও প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আমাদের আগ্রহের সৃষ্টি হবে।
ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা সম্পর্কে অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্ণেল আসাদুল ইসলাম আজাদ বলেন, বাংলার সংস্কৃতি ধরে রাখতে হলে প্রতিটি এলাকায় এ ধরনের ঐতিহ্যবাহী খেলার আয়োজন করা খুবই প্রয়োজন। আমাদের দূর্গাপুরে আগামীতেও এ ধরনের খেলার আয়োজন করা হবে।
প্রতিযোগিতাটি উদ্বোধন করেন অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্ণেল আসাদুল ইসলাম আজাদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন মধুপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছরোয়ার আলম খান আবু, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান খন্দকার শফি উদ্দিন মনি, মধুপুর পৌরসভার মেয়র মো. মাসুদ পারভেজ, মধুপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফা জহুরা প্রমুখ।

ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন অঞ্চলের ২০-২৫ ঘোড়া অংশ নেয়।

Comments

comments