সর্বশেষ সংবাদ

গাইবান্ধায় সাহিত্যের ছোট কাগজ বিন্দুবিসর্গর’ ২০তম জন্মজয়ন্তী উৎসব

আরিফ উদ্দিন, স্টাফ রিপোর্টার, গাইবান্ধা থেকে: গাইবান্ধার সাহিত্যের ছোট কাগজ ‘বিন্দুবিসর্গ’র ২০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সাহিত্য সংস্কৃতিসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য গাইবান্ধাসহ দেশের গুণীজনদের ত্রৈলোক্যনাথ বর্মন বাবাজির স্মৃতি পদক ২০১৮-২০১৯ ও বিন্দুবিসর্গ পদক ২০১৯ প্রদান করা হয়। এছাড়া মুক্তি ভিত্তিক আলোচনা, কবিতা ও ছড়া পাঠ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার ফকিরের বাজার সংলগ্ন মালিবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের উন্মুক্ত মঞ্চে ‘বিন্দুবিসর্গ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংসদ’ এই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি উৎসবের উদ্বোধন করেন এবং গুণীজনদের মধ্যে পদক বিতরণ করেন। এসময় বিন্দুবিসর্গ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি কবি সাহিত্যিক প্রাবন্ধিক সাবেদ আল সাদ পদকপ্রাপ্ত গুণীজনদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ও উত্তরীয় পরিয়ে দেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই বিশেষ অতিথি দেশের বরেণ্য সাহিত্যিক ছড়াকার ও প্রাবন্ধিকসহ অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রসূন কুমার চক্রবর্ত্তী, মাকিদ হায়দার, আসলাম সানি, বাছেত খান, কাজল চক্রবর্ত্তী, আলম তালুকদার, আবু জাফর সাবু, সরোজ দেব এবং বিন্দুবিসর্গ সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন সুজন প্রমুখ। এছাড়া পদকপ্রাপ্ত অন্যান্য কবি সাহিত্যিকরাও তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন এবং সাহিত্য বিষয়ক আলোচনায় অংশ নেন।

এ বছর ত্রৈলোক্যনাথ বর্মন বাবাজী স্মৃতিপদক প্রদান করা হয় গবেষণায়- ড. মাসুদুজ্জামান, প্রবন্ধে- আসলাম সানী, কবিতায় শানি-ময় মুখোপাধ্যায়, গল্পে মাহবুবুল আলম, ছড়ায় আবু জাফর সাবু, সাহিত্যে সামগ্রিক অবদান মাহমুদ কামাল, শিল্পসাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠকে ইসলাম রফিক, সমাজ সংযোগ ব্যক্তিত্বে আলমগীর কবীর বাদল ও তরুণ উদ্যোক্তায় মৌনি তাপসী সম্পা। এছাড়া বিন্দুবিসর্গ পদক প্রদান করা হয়- সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানে কাজল চক্রবর্ত্তী (ভারত), প্রবন্ধে বাছেত খান, উপন্যাসে সনে-াষ ঢালী, গল্পে আনোয়ার কামাল, কবিতায় অঞ্জনা সাহা, ছড়ায় আলম তালুকদার, কবিতা ও ছড়ায় সুচি সৈয়দ, শিল্প সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠকে শাহ আলম বাবলু, প্রবন্ধে হাফিজুল হিলালী বাবু, প্রচ্ছদ অংকনে কিংশুক ভট্টাচার্য ও সমাজসংযোগে ব্যক্তিত্বে আমিনুর জামান রিংকু।

এছাড়া স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন পিটু রশীদ, কবি সোহেল রানা, শেখ এ সাঈদ ফারসী, কবি মাহমুদুল­া প্রমুখ। পরে স’ানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিপুল সংখ্যক উৎসাহী মানুষ শীতার্ত কুয়াশাচ্ছন্ন রাতকে উপেক্ষা করে বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে একটানা রাত ৯টা পর্যন- অনুষ্ঠিত ব্যতিক্রমী ও আকর্ষনীয় এই অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন। উলে­খ্য, প্রতিবছর ‘বিন্দুবিসর্গ সাহিত্য সংস্কৃতি সংসদ’ দেশের বরেণ্য কবি সাহিত্যিকদের অংশ গ্রহণে গুণীজনদের মধ্যে পদক বিতরণ করে এবং এ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকে। এতে দেশের বরেণ্য কবি ও সাহিত্যিকরা অংশ গ্রহণ করেন।

Comments

comments