সর্বশেষ সংবাদ

সাঘাটায় চুরির অপবাদ সইতে না পেরে নাইট গার্ডের আত্মহত্যা

নুর হোসেন রেইন, সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ
গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার যাদুর তাইড় গ্রামের মৃত পূর্ন চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে ভাদু বিশ্বাস (৫৮)। সাঘাটা টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ অধ্যক্ষের চুরির অপবাদ সইতে না পেরে রোববার ভোরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ভাল মানুষ হিসেবে পরিচিত ভাদুর অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তাকে এক নজর দেখার জন্য ভীর করছে লোকজন।

এলাকাবাসি সুত্রে জানা যায়, উপজেলার যাদুর তাইড় গ্রামের মৃত পূর্ন চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে শ্রীঃ ভাদু বিশ্বাস সাঘাটা টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠালগ্নে নিজ সহায় সম্বল একটি গরু ও সুদের উপর টাকা নিয়ে ৩৫ হাজার টাকা অধ্যক্ষকে ঘুষ দিয়ে নাইট গার্ডের চাকরী নেয়। প্রতিষ্ঠানের ২ হাজার টাকা বেতন ও নিজে সাইকেল মেরামত কাজ করে কোনোমতে দিনাতিপাত করে আসছিল। গত শুক্রবার উক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রাতে দুটি কম্পিউার এবং ল্যাবটপ চুরি হয়। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু শনিবার সাঘাটা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। থানার এ এস আই মোশারফ ঘটনা স্থলে তদন্তে এসে নাইট গার্ড ভাদুকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মিাংশার কথা বলে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা মুচলিকা দিয়ে ছেড়ে নিয়ে আসেন। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু ও স্থানীয় ঘুড়িদহ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আজহার আলী মিন্টু চুরি মালামাল বাবদ তিন লক্ষ টাকা দাবি করে ভাদুর কাছে। তা না হলে জেল হাজতে পাঠাবে বলে হুমকি দেয়। গরিব মানুষ তিন লক্ষ টাকার চিন্তা ও অপবাদ সইতে না পেরে। রাতে সবার অজান্তে রান্না ঘড়ে ধর্নার সাথে রশি লটকিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে দেখে তার স্বামী বিছানায় নেই। খুজা খুজির এক পর্য্যায়ে রান্না ঘড়ে দেখতে পেয়ে বাচানোর চেষ্টায় রশি খুলে মাটিতে নামায় ততক্ষণে সে মারা যায়। স্থানীয় আবুল কালাম আজাদ বলেন, ভাদু খুব ভাল মানুষ ছিলেন। ভাদুর স্ত্রী সুধারানী বলেন, অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু তিন লাখ টাকা চাওয়ায় সে চিন্তায় রাতে ফাঁস দিয়ে মারা যায়। অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজু ও সাবেক ইউপি সদস্য আজহার আলী মিন্টু সাথে কথা হলে তারা তিন লক্ষ টাকা চাওয়ার বিষয়টি অস্বিকার করেন। সাঘাটা থানা অফিসার ইর্নচার্জ বেলাল হোসেন প্রতিবেদককে জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভাদুকে থানায় আনা হয়।

Comments

comments