সর্বশেষ সংবাদ

সাঘাটায় বন্যা অপরিবর্তিত বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত

নুর হোসেন রেইন, সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:
উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষণে ব্রহ্মনদের পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। সান্তাহার থেকে লালমনিরহাটের রেল যোগাযোগও বন্ধ রয়েছে। সেই সাথে প্লাবিত হচ্ছে নতুন নতুন এলাকা।
গতকাল বুধবার পানির প্রবল ¯্রােতে সাঘাটা-গাইবান্ধা আঞ্চলিক মহাসড়কের পোড়াগ্রাম নামক স্থানে সড়ক সংযুক্ত বাঁধ ভেঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এছাড়াও একই সড়কের বোনারপাড়া-বাদিয়াখালী সড়কের টেপা পদুমশহরের রাস্তা পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ফলে সাঘাটা উপজেলার সাথে সড়ক পথে গাইবান্ধা সদরের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সেই সাথে উপজেলার টেপা পদুমশহর, ভরট্ট পদুমশহর, চকদাতেয়া সহ বিভিন্ন গ্রাম নতুন করে প্লাবিত হয়েছে।

বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশন মাস্টার খলিলুর রহমান জানান, বোনারপাড়া-লালমনিরহাট রেলপথের বাদিয়াখালী-ত্রিমোহনী রেল লাইন পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এতে করে বুধবার সকাল ১১টা থেকে লালমনিরহাট-সান্তাহারের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। ফলে সমগ্র উপজেলার জনসাধারণের মাঝে এখন ভয়াবহ বন্যা আতংক বিরাজ করছে। উক্ত এলাকায় ঘর-বাড়ি আসবাবপত্র, গরু-ছাগল নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।
এদিকে, ওই দিন উপজেলার ভরতখালী, সাঘাটা, ঘুড়িদহ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে অসহায় বন্যার্ত প্রত্যেক পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। উপস্থিত ছিলেন, ভরতখালী ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল আজাদ শীতল, ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক, সচিব আবু তাহের, সাঘাটা ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইট, উপ-সহকারি প্রকৌশলী আব্দুল হামিদ, সচিব রবিউল, ঘুড়িদহ ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

Comments

comments