সর্বশেষ সংবাদ

সাদুল্যাপুরে ৪ বখাটে কে শাস্তি প্রদান

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে স্কুলছাত্রীর পথরোধ ও হাত ধরে টানাহেঁচড়া করার অপরাধে চার বখাটে যুবককে নিজের থু-থু মাটিতে ফেলে চাটানো হয়েছে। তাদের কয়েকবার কান ধরে উঠবস ও চড়থাপ্পর দিয়ে শায়েস্তা করা হয়। পরে প্রকাশ্যে হাত জোড় করে ক্ষমা প্রার্থনা করায় রক্ষা পায় তারা। সাদুল্যাপুর উপজেলার ৪ নাম্বার জামালপুর ইউনিয়নের চিকনী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আঙ্গুর আলীর বাড়িতে বুধবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে সালিশ বৈঠকে বখাটেরদের এ শাস্তি দেওয়া হয়।

ফরিদুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মাসুদ সরকার মিলন নেতৃত্বে এই সালিশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বখাটে চার যুবকের বাবা-মা সহ গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। শাস্ত্মিপ্রাপ্তরা হল জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও চিকনী গ্রামের বাসিন্দা সেলিম সরকার মানিকের ছেলে মিম সরকার, তার ভাতিজা হাসেন আলীর ছেলে মেহেদী হাসান, একই গ্রামের নুরম্নল হকের ছেলে নুরশাদ মিয়া ও অবিজল মিয়ার ছেলে হযরত মিয়া। ইউপি সদস্য মাসুদ সরকার মিলন সালিশ বেঠকে বখাটেদের শাস্তি দেওয়া ও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

জানা গেছে, বুধবার বিকেলে ওই স্কুলছাত্রী স্কুল শেষে বাড়ি ফিরছিল। পথে নাগবাড়ি-চিকনী রাস্ত্মার মাঝ পথে ওসমান মাষ্টারের বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় চার বখাটে তার পথরোধ করে। এক পর্যায়ে বখাটে যুবক মেহেদী স্কুলছাত্রীর হাত টেনে ধরে টানাহেঁচড়া করতে থাকে। এ সময় স্কুলছাত্রী চিৎকার দিলে এলাকাবাসী ছুটে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে বাড়িতে পাঠায়। এ ঘটনা জেনে তার মা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার গর্ণমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার দাবি করেন।

 

মো. জিলস্নুর রহমান মন্ডল পলাশ
সাদুল্যাপুর

Comments

comments