সর্বশেষ সংবাদ

সুশাসন এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে – রাশেদ খান মেনন

আরিফ উদ্দিন, স্টাফ রিপোর্টার, গাইবান্ধা থেকে: গাইবান্ধা শহীদ মিনারে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে উৎপাদন বেড়েছে, রপ্তানি বেড়েছে, প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। আগামী ২০২৩ সালে এ দেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। কিন্তু গরীব-ধনির বৈষম্য, অঞ্চলে অঞ্চলে বৈষম্য রয়েই গেছে। দেশের ৪ কোটি মানুষ এখনও মাত্র ১ ডলার আয় করে।

তিনি বলেন, ক্ষমতার চারপাশে থেকে একটি গোষ্ঠী দুর্নীতি করে, মাদক ব্যবসা করে, ঋণ খেলাপির মাধ্যমে দেশের সম্পদ কুক্ষিগত করে বিদেশে পাচার করছে। তিনি বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ডের প্রসঙ্গ তুলে বলেন, শিক্ষাঙ্গনে গণতন্ত্র নেই। মদ প্রকাশের স্বাধীনতা নেই। একইভাবে দেশেও মত প্রকাশের স্বাধীনতা সংকুচিত হয়ে আসছে। তিনি বলেন, আবরার হত্যাকান্ডকে কেন্দ্র করে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের কথা বলা হচ্ছে। তিনি প্রশ্ন রাখেন জাতীয় রাজনীতিতেও খুন খারাপি দুর্নীতি সন্ত্রাস আছে, তাই বলে কি জাতীয় রাজনীতিও বন্ধ করে দিতে হবে?

এতে মাথা ব্যথা দুর করতে মাথা কাটারই সামিল হবে। তিনি বলেন, সুশাসন এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুর্নীতি বিরোধী অভিযানকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, নিজের ঘর থেকেই শুদ্ধি অভিযান চালিয়ে তিনি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। দুর্নীতি বিরোধী অভিযানে তাঁর হাত আরও লম্বা করা দরকার। আড়ালে যারা রয়েছে তাদেরও বের করে আনতে হবে।

রাশেদ খান মেনন এমপি বলেন, গত ১০ বছর থেকে শুনছি তিস্তা চুক্তি হবে। কিন্ত এবারও তা হলো না। তবে এ নিয়ে বিএনপি জামায়াত নতুন ফন্দি শুরু করেছে। তারা বলছে, কোথায় তিস্তার পানি আনব উল্টো প্রধানমন্ত্রী ফেনীর পানি দিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু যে সামান্য পানি দেয়া হয়েছে- তা আমাদের একসময়ে সাহায্য করেছিল যে ত্রিপুরা- সেই শহরের খাবার পানি হিসাবে দেয়া হয়েছে। আমরা বরং বলি আমরা খাবার পানি দিয়েছি তোমরা আমার কৃষকের চাষাবাদের পানি দাও। তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে কোন পানি আনতে পারেনি।

রাশেদ খান মেনন গতকাল মঙ্গলবার গাইবান্ধা পৌর শহীদ মিনার চত্বরে ওয়ার্কার্স পার্টি জেলা শাখার ৫ম সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন। দলের জেলা সভাপতি বীরেন সরকার মিন্টুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মলি­ক, পলিটব্যুরোর সদস্য আমিনুল ইসলাম গোলাপ, ভারপ্রাপ্ত জেলা সাধারণ সম্পাদক প্রণব চৌধুরী খোকন, এম.এ মতিন মোল­া, মাসুদুর রহমান মাসুদ, অ্যাডভোকেট আশরাফ আলী, শহিদুর রহমান, রিপন বর্মন, জাকারিয়া হাসান সুমন, আলমগীর কবির প্রমুখ।

Comments

comments