সর্বশেষ সংবাদ

ছেলেমেয়েদের মেধা বিকাশে সৃজনশীল হতে হবে – কৃষিমন্ত্রী

সৈয়দ সাজন আহমদ রাজু, ধনবাড়ী (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যত। আমাদের যে শিশুরা, ছেলেমেয়েরা ও তরুণরা আছে তাদেরকে এমনভাবে গড়ে তুলতে হবে যাতে করে তাদের মেধার বিকাশ পায়। তাদের মধ্যে সৃজনশীলতার সৃষ্টি হয়। আমাদের ছেলেমেয়েরাও ভালো খেয়ে, ভালো পড়ে, ভালো পরিবেশে জীবন ধারণ করলে নতুন-নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করবে। আমাদের বাংলাদেশে এখন আর খাওয়ার কষ্ট নাই। এখন দিনমজুররাও তাদের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য কিন্ডারগার্টেনে পাঠায়। কিন্ডারগার্টেনে পড়ালেখার মান খুবই ভালো। তারা চায় তাদের ছেলে মেয়েরা ভালোভাবে পড়াশোনা করুক, ভালো চাকুরী-বাকুরী করুক। তিনি বলেন, পড়াশোনার সাথে-সাথে ভালো নাগরিক হতে হবে। আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছিলাম, অস্ত্র হাতে নিয়ে আমরা যুদ্ধ করেছি। যুদ্ধ মানেই জীবন বাজি রাখা। মুক্তিযুদ্ধে আমাদের প্রতিপক্ষ পাকবাহিনী, রাজাকার ও আলবদর যারা এই রাজাকার, আলবদর ও পাকবাহিনীর হাতকে শাক্তিশালী করেছে, পাকবাহিনীকে সহযোগিতা করেছে, পাকবাহিনীর হাতে আমাদের মা-বোনদের তুলে দিয়েছিল সেই রাজাকার আলবদর এবং পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করেছি। সেই যুদ্ধে আমার সাথে অনেক কম বয়সের যারা ছিল আমাদের সকলেরই স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশ হবে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত ও একটি সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ।

জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রেখে মানবতায় বারবার পুরস্কৃত হচ্ছেন। তিনি শুধু বাংলার ১৬ কোটি মানুষের মা নন। তিনি সারা পৃথিবীর মানবজাতির মা।
তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে কঠোর হুশিয়ার করে বলেন, সরকারী প্রাইমারী স্কুল, সরকারী হাই স্কুলে কোন পড়াশোনা হয় না। সবাই ফাঁকিবাজ। কোন কাজ কর্ম করে না। প্রাইমারী স্কুলগুলো মান যাতে ভালো হয় তিনি অভিভাবকদের সে জন্য চাপ সৃষ্টির কথা বলেন। প্রাইমারী স্কুলে কোন পড়াশোনা হয় না। তারা অনেক টাকা বেতন পায়। ছেলেমেয়েরা পড়তে যায় না সেখানে। তাদের লজ্জা হওয়া উচিত। তাদের মুখে কালিমা দেয়া উচিত। কালিমা লেপন করা উচিত। যাতে তাদের লজ্জা হয়।

কৃষিমন্ত্রী শনিবার (০৫ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলা কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের উপজেলা অডিটরিয়ামে বৃত্তি প্রধান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ধনবাড়ী উপজেলা কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ধনবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ হীরা, ধনবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউল আলম মঞ্জু, ধনবাড়ী পৌর মেয়র খন্দকার মঞ্জুরুল ইসলাম তপন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান শামছুল হুদা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যাম জেব-উন-নাহার, ধনবাড়ী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহমুদা খাতুন প্রমুখ।

উক্ত বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে উপজেলার কৃতি ৩৯৭ জন শিক্ষার্থীর মাঝে নগদ অর্থ, ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

Comments

comments

Leave a Reply