সর্বশেষ সংবাদ

আত্রাই নদীর বেরিবাঁধ ভাঙনে আতঙ্কে পত্নীতলাবাসী

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, পত্নীতলা প্রতিনিধি:
উজান থেকে বয়ে আসা পানি দ্বিতীয় দফায় বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে আত্রাই নদীতে। এতে নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় বেশ কয়েকটি স্থানে নদী তীরবর্তী বেরিবাঁধ ভাঙার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় সচেতন মহল। বর্তমানে নদীপাড়ের বাসিন্দারা চরম হতাশায় প্রহর কাটাচ্ছেন।

জানা যায়, গত ২০১৭ সালে উপজেলার পাটিচরা ও পত্নীতলা ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি বাঁধ ভেঙে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের অন্তত ২৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়। বিগত বন্যার ক্ষতিগ্রস্থ ভুুক্তভোগীরা বর্তমানে আবারো চরম হতাশায় রয়েছেন। সচেতন মহলের দাবি, এভাবে আত্রাই নদীর পানি বৃৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে, কয়েক দিনের মধ্যে নজিপুর পৌর এলাকার চাঁনপুুর, পলিপাড়া, পাটিচরা ইউনিয়নের কাশিপুর, বহবলপুুর, পশ্চিম পাটিচরা, নজিপুর ইউনিয়নের কাঞ্চন, ফহিমপুর, পত্নীতলা ইউনিয়নের পত্নীতলা খাদ্য গোডাউন সংলগ্ন, বিষ্টপুর, চকমূূলি ডাঙ্গাপাড়া, বোরাম ও কাঁটাবাড়ি এলাকায় বাঁধ ভাঙার আশঙ্কা রয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় ব্যক্তিরা অক্ষেপ করে জানান, প্রভাবশালী কতিপয় ব্যক্তির যোগসাজসে ও ইজারাদাররা অবৈধ ভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলনের কারণেও অনেক স্থানে নদীর বাঁধ এখন হুমকির সম্মুখীন। এতে এক প্রকার মানবসৃষ্ট দুর্যোগের আশঙ্কা।

নওগাঁ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুধাংশু কুমার সরকার জানান, আত্রাই নদীর পত্নীতলা উপজেলায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ রক্ষায় আমরা সর্বদা সজাগ দৃষ্টি রেখেছি। আমাদের কর্তরত লোকবল দিন-রাত তদারকি ও কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু হঠাৎ করে নদীর পানি দ্বিতীয় দফায় বৃদ্ধি পেতে থাকায় আবারো ঝুঁকিপূর্ণ বিভিন্ন পয়েন্ট।

Comments

comments