সর্বশেষ সংবাদ

পশ্চিম সুন্দরবনে বেপরোয়া ডাকাত দল, আবারও সাত জেলে অপহরণ

মোঃ মামুন হোসেন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা রেঞ্জের পশ্চিম সুন্দরবন এলাকায় বনদস্যুদের তৎপরতা আবারও বৃদ্ধি পেয়েছে।ডাকাত দল গুলো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।অপহরণ কৃত অসহায় জেলেদের মন্তব্য, প্রশাসনের অবহেলিত কারণে, বনদস্যুরা এতটা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

প্রতিদিন জেলেদের অপহরণের খবর এলাকায় মানুষের মুখে মুখে।বনদস্যুদের নাম পরিচয় জানলেও জেলেরা ভয় পেয়ে মুখ খুলতে পারছে না। সর্বশেষ গত ৩ জুলাই বুধবার মধ্যরাতে ৩টি নৌকা সহ ৭ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় বনদস্যুরা। জেলেদের একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ জুলাই বুধবার মধ্যরাতে সুন্দরবনের মামুন্দো নদীর ছোট বৈকারী এলাকা থেকে ৩টি নৌকা সহ ৭ জেলেকে অপহরণ করে বনদস্যু জনাব বাহিনী, রবিউল বাহিনী, আজাদ বাহিনী, জিয়া বাহিনী ও মেকাইল বাহিনী।
অপহৃত ব্যক্তিরা হল শ্যামনগর উপজেলার পার্শ্বেখালী গ্রামের নওশের আলীর ছেলে মোবারক আলী, ধনাগাজীর ছেলে আব্দুল আলিম, বড় ভেটখালী গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে আলম, আজগার আলীর ছেলে আলম, আক্তারের ছেলে নূর ইসলাম, নূর ইসলামের ছেলে কামরুল ইসলাম, এবং মীরগাং গ্রামের জব্বার গাজীর ছেলে ইউনুস আলী। এদিকে, দেড় মাস আগে জনাব বাহিনী কালিঞ্চী গ্রামের সাগর মুন্ডার ছেলে ভাগ্য মুন্ডাকে অপহরণ করে নিয়ে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।
মুক্তিপণের টাকা দিতে না পারায় তার আর কোন খোঁজ মিলেনি। গরিব অসহায় সাগর মুন্ডা ছেলের জন্য প্রশাসন সহ সাধারন মানুষের নিকট কেঁদে কেঁদে বলছে,আমার জীবনের বিনিময়ে ছেলে ভাগ্য মুন্ডাকে ফিরিয়ে দেও।সব মুক্তিপণের টাকা পরিশোধ করে, জনাব বাহিনীর হাত থেকে ফিরে আসা এক জেলে পার্শ্বেখালী গ্রামের আলিম জানান, বনদস্যু বাহিনীগুলো মোবাইলে জেলেদের বাড়িতে যোগাযোগ এবং বিকাশ-একাউন্টের মাধ্যমে মুক্তিপণের টাকা সংগ্রহ করে থাকে।
এলাকা ভিত্তিক বনদস্যুদের সহযোগী আছে, তারা সর্ব সময় মোবাইলে সমস্ত বিষয়ে খবর দিয়ে থাকে। সার্বিক বিষয়গুলো নৌ-পুলিশ ও কোষ্টগার্ড অবহিত থাকলেও কোন ধরনের উদ্ধার তৎপরতা পরিলক্ষিত হয়নি। অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে, জনাব বাহিনী ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকের সামসেরনগর এলাকায় অবস্থান করে, সুন্দরবনের ঝাড়া নামক স্থানে বসে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।
অপহরণের বিষয়ে কৈখালী কোষ্টগার্ডের পেটি অফিসার আব্দুল হান্নান বলেন, বুধবার মধ্যরাতে জেলে অপহরণের বিষয়টি আমরা শুনেছি। আমরা তাদের উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছি।তিনি আরও বলেন অপরাধী যতই ক্ষমতাশীল হউক তাদেরকে আইনের আওতায় আনাহবে।

Comments

comments