সর্বশেষ সংবাদ

প্রেসার গ্রুপ শুণ্য গোবিন্দগঞ্জ, ক্ষমতা হয়ে গেছে লাগাম ছাড়া

মোস্তফা কামাল সুমন: একটি জনপদের প্রকৃত চিত্র উঠে আসে একটি সুশীল সমাজের কল্যাণে। জনপদের আর্থ সামাজিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণও থাকে এই সমাজের হাতে। চরম ক্ষমতা চরম স্বেচ্ছাচারিতাকে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে সুশীল সমাজ নিবৃত্ত করে। শক্তিশালী একটি সুশীল সমাজের কদর সারা বিশ্ব বিধিত। জাতীয় আন্তর্জাতিক স্থানীয় ইস্যুতে এই সুশীল সমাজ নিয়ামকের ভুমিকা পালন করে। তারা সমাজের গতি প্রকৃতি নির্ণয় করে দেয়। কিন্তু দুঃখের বিষয় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা একটি অগ্রগামী উপজেলা হলেও এখানে সেই ভাবে সুশীল সমাজ তথা প্রেসার গ্রুপ গড়ে উঠেনি। ফলে ক্ষমতার অপব্যবহার উপজেলায় হয়ে গেছে লাগামহীন।

১৭টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা। বিশাল আয়তন ও বিপুল জনসংখ্যার অধিকারী হলেও কার্যত একটি সুশীল সমাজহীন অবস্থায় চলছে এই উপজেলায়। উপজেলার শিক্ষিত অর্ধশিক্ষিত ব্যবসায়ী সম্প্রদায়, শিক্ষক সমাজ, বাম ঘরোনার রাজনীতিবিদ, মুক্তমনা সাংস্কৃতিক কর্মী সংগঠক, সামাজিক পেশাজীবী প্রতিষ্ঠান এমনকি সমাজের দর্পন খ্যাত সাংবাদিক সমাজ কেন জানি মেরুদন্ড সোজা করে উপজেলায় দাঁড়াতেই পারেনি। প্রতিটি পেশাজীবী সম্প্রদায় যেন জুজুর ভয়ে কম্পিত থাকছে সবসময়। সমাজের দর্পন খ্যাত সাংবাদিক সমাজও লেজুড়বৃত্তি করে নিজেদের আর্দশিত কাজ থেকে দুরে সরে থেকে রিপোর্টিং সাংবাদিকতায় ব্যস্ত। বস্তুনিষ্ঠ ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা তাদের কাজে অলিক বিষয়। হয়তো উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা তাদের প্রকৃত কার্য কি তা বুঝে উঠার যোগ্যতাও রাখে না। ফলে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা হয়ে পড়েছে প্রেসার গ্রুপ হীন একটি উপজেলা।

শক্তিশালী মেরুদন্ডহীন সুশীল সমাজের এই নিক্রিয়তার মাঝেও মাঝে মাঝেই আসার প্রদীপ সঞ্চালন করে গোবিন্দগঞ্জ নাগরিক কমিটির আহবায়ক উপজেলা ওয়াকার্স পার্টির সভাপতি আব্দুল মতিন মোল্লা। মাঝে মাঝে শত প্রতিকূলতার মাঝেও তিনি তার কয়েকজন সঙ্গী কে নিয়ে দাঁড়িয়ে যান বিভিন্ন সামাজিক রাজনৈতিক পারিবারিক অনাচারের বিরুদ্ধে। জুজুর ভয়ে ভীত উপজেলার মধ্যবিত্ত শ্রেণির শিক্ষিত সম্প্রদায় আজ নিজ স্বার্থে অন্ধ হয়ে গেছে। তার অনেকেই উপজেলায় না থেকে থাকছে দুরবর্তী বগুড়া গাইবান্ধা জয়পুর হাট সহ পাশ্ববর্তী শহরগুলোতে থাকছে। কাকের মত চোঁখ বন্ধ করে তারা ভাবছে কেউ তাদের দেখছে না। সমাজের গতি প্রকৃতি নির্ধারণকারী মধ্যবিত্ত শ্রেণি যদি না জাগে তবে সমাজ মুখ থুপড়ে পড়তে বাধ্য।

একটি শক্তিশালী সুশীল সমাজের অভাবে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ক্ষমতার ভারসাম্য নষ্ট হয়ে গেছে বহু আগে। যখন যার কাছে ক্ষমতা যায় তখন সে চরম স্বৈরচারী কায়দায় ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে। এই অপপ্রয়োগ উপজেলা শহর থেকে শুরু করে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলেও পরিলক্ষিত হয়। ক্ষমতার ভারসাম্য রক্ষাকারী সুশীল সমাজ গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় গড়ে তোলা সময়ের অন্যতম প্রধান দাবী হয়ে উঠেছে। এজন্য এগিয়ে আসতে হবে উপজেলার শিক্ষিত মধ্যবিত্ত শ্রেণিকে।

Comments

comments