সর্বশেষ সংবাদ

গ্রামীণফোনের ফোরজি সেবা গোবিন্দগঞ্জ কবে পাবে?

মোস্তফা কামাল সুমন: তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে মানুষের হাতে হাতে স্মার্টফোন। স্মার্টফোনের কল্যাণে বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়। প্রতিদিন দ্রুতলয়ে বদলে যাচ্ছে প্রযুক্তি। সেই সাথে বাড়ছে মানুষের চাহিদা। এই চাহিদা পূরণের তাগিদ অনুভূত হচ্ছে গাইনান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলাবাসীর মনে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় গ্রামীণফোনের ফোরজি সেবা চালু হলেও গোবিন্দগঞ্জে এখন থ্রিজি ও টুজি সেবা দিচ্ছে গ্রামীণফোন। এতে করে ইন্টারনেট প্রযুক্তির উচ্চতর সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তারা।

গোবিন্দগঞ্জ পৌর শহর সহ সারা উপজেলায় সবচেয়ে বেশি গ্রামীণফোন অপারেটরের সিম ব্যবহারকারী। কিন্তু রবি সহ অন্য অপারেটররা গোবিন্দগঞ্জে ফোরজি সেবা চালু করলেও গ্রামীণফোনের কোন উদ্যোগই যেনো চোখে পড়ছে না। দেশের অন্যতম বৃহত্তম একটি উপজেলা গোবিন্দগঞ্জ হলেও গ্রামীণফোনের এমন উদাসীনতা উপজেলাবাসীর মনে ক্ষোভের জন্ম দিচ্ছি। শুধু যে ফোরজি সেবাই দিচ্ছে না তা নয়। উপজেলায় বিভিন্ন অঞ্চলে তাদের নেটওয়ার্ক খুব দুর্বল। সেদিকেও গ্রামীণফোন সুনজর দিচ্ছে না।

উপজেলা দরবস্ত ইউনিয়নের বিশুবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক তৌহিদুল ইসলাম তুহিন জানান, দুর্বল নেটওয়ার্ক এর কারণে বিদ্যালয়ে ঠিক মত কথা বলা যায় না। ইন্টারনেট ব্যবহার করা আরো কঠিন। ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় শুধু ঘুরতেই থাকে ঘুরতেই থাকে।

পৌর শহরের প্রধানপাড়ার বাসিন্দা রায়হান জানান, বাসার একটি ট্যাবে রবি ইন্টারনেট প্যাকেজ ব্যবহার করি যেটা অধিকাংশ সময়েই ফোরজি কাভারেজে দেয়। কিন্তু সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত নিজের গ্রামীণফোন ইন্টারনেট থ্রিজি কাভারেজ দেয়। আবার মাঝে মাঝে টুজি কাভারেজের পরিমাণ কম নয়। যদিও তার ফোন ও সিম ফোরজি সাপোর্ট করে।

ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় নেটওয়ার্ক সিম্বলের পাশে ‘ই’ থাকলে সেটা টুজি নেটওয়ার্ক। আর ‘এইচ’ থাকলে সেটাকে থ্রিজি নেটওয়ার্ক এবং ফোরজি নেটওয়ার্ক এর ক্ষেত্রে ‘ফোরজি’ লেখা থাকে। কিন্তু গোবিন্দগঞ্জে গ্রামীণফোনে কখনোই ফোরজি আসে না। সর্বোচ্চ এইচ প্লাস আসে।

উপজেলাবাসী দ্রুত গোবিন্দগঞ্জে ফোরজি সেবা চালু করতে গ্রামীণফোনের প্রতি আহবান জানাচ্ছে।

Comments

comments